ঢাকারবিবার , ২৫ ডিসেম্বর ২০২২
  1. অপরাধ ও দুর্নীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আহত
  4. এওয়ার্ড
  5. কৃষি
  6. খেলাধুলা
  7. জাতীয়
  8. তথ্য প্রযুক্তি
  9. দিবস
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচন
  12. বিনোদন
  13. মৃত্যু
  14. রাজনীতি
  15. শিক্ষা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

এমপিকে নিয়ে কটুক্তির জের ধরে বিশ্বনাথে মারামারি

Ranisankailnews24
ডিসেম্বর ২৫, ২০২২ ৭:৩২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান কর্তৃক বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের ‘সিংগেরকাছ পাবলিক বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ’ গভর্নিং বডির সভাপতির পদ থেকে আলহাজ্ব আবারক আলীকে বাতিল এবং সভাপতি পদের জন্য নতুন ভাবে নাম প্রস্তাব করার লক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় স্থানীয় এমপি মোকাব্বির খানকে নিয়ে কটুক্তি করাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) সকালে বিদ্যালয় মিলনায়তনে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

স্থানীয় এমপি মোকাব্বির খানের ডিওতে আবারক আলীর পদ বাতিল হওয়ার কারণে সভায় তার (আবারক) পক্ষের লোকজন এমপিকে নিয়ে কটুক্তি করে বক্তব্য দিতে থাকলে অপর পক্ষের লোকজন ওই কটুক্তির প্রতিবাদ করলে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন লাঠিসোঠা হাতে মুখোমুখী অবস্থান নেন। এরপর থানা পুলিশের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও এনিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে যে কোন সময় অনাকাঙ্খিত ঘটনা সংঘটিত হওয়ার আশংঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

সিংগেরকাছ পাবলিক বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ’র অধ্যক্ষ জোবায়ের হোসাইন মজুমদার জানান, চলতি বছরের ৩১ মে এলাকার ১৮৮ ব্যক্তির স্বাক্ষরিত রেজুলেশনের সিদ্ধান্ত ক্রমে সভাপতি পদে আলহাজ্ব আবারক আলীর নাম চুড়ান্ত করা হয়। এরপর স্থানীয় এমপি মহোদয়ের সুপারিশ নেওয়ার জন্য ৯ জুন সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত উনার বাসার সামনে অপেক্ষা করলে সাক্ষাৎ করতে না পেরে বিধিমতে বোর্ডে জমা দেই। ১৮ সেপ্টেম্বর বোর্ড কর্তৃক উক্ত কমিটিকে চুড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। ৮ আগস্ট স্থানীয় এমপি মহোদয় এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে সভাপতি পদে আবারক আলীর মনোনয়ন বাতিল করে বিধি মোতাবেক নতুন ভাবে সভাপতি পদে মনোনয়নের প্রস্তাব প্রেরণের জন্য সিলেট শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের পক্ষ নির্দেশ দেওয়া হয়। এরই প্রেক্ষিতে আজকের (২৪ ডিসেম্বর) সাধারণ সভার আয়োজন।

অভিযোগপত্রে স্থানীয় এমপি মোকাব্বির খান উল্লেখ করেন, সিংগেরকাছ পাবলিক বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ’র গভর্নিং বডির কমিটি গঠনের ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে। বিধিমতে গভর্নি কমিটির সভাপতি নির্ধারণে স্থানীয় এমপির সাথে আলোচনা করতে গেলে তিনি (এমপি) আদালত কর্তৃক সাজাপ্রাপ্ত হত্যা মামলাসহ বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত থাকা ও বার বার জেলাখাটা আসামী আবারক আলীকে মনোনয়ন না দেওয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু অজ্ঞাতকারণে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ ও কতিপয় অসাধুচক্র এমপির পরামর্শকে পাশ কাটিয়ে সভাপতি পদে উক্ত আবারক আলীকে মনোনয়নের অনুমতি নেয়। যা একজন এমপির অধিকার ক্ষুন্ন করেছে এবং গভর্নি কমিটি গঠনের নীতিমালা বিরোধী ও স্কুল-কলেজের স্বার্থের পরিপন্থি।

প্রত্যক্ষ দর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বাতিল হওয়া সভাপতি পদে পুননির্বাচনের জন্য শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ ও গভনিং কমিটির সদস্য সচিব জোবায়ের হোসাইন মজুমদারের ডাকা সাধারণ সভা চলাকালে স্থানীয় এমপি মোকাব্বির খানকে নিয়ে কটুক্তি করে বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা আবারক আলী পক্ষের গভর্নিং বডির শিক্ষানুরাগী সদস্য ও বিএনপি নেতা ফজর উদ্দিন সাগর। এসময় অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম পক্ষে দৌলতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ ও সিংগেরকাছ বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি আফরোজ আলী সেই কটুক্তির প্রতিবাদ করেন এবং তাকে সালিনতার সাথে বক্তব্য রাখার কথা বলেন। আর এই বিষয়টি নিয়ে স্কুল মিলনায়তনের সভাস্থলেই দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি ও মারামরির ঘটনা ঘটে। এরপর তুমুল হট্টগোল শুরু হলে থানা পুলিশের এআই সাইফুল মোল্লা ও এএসআই রেদওয়ান আহমদ সভাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন ও উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দেন। তারপর উভয় পক্ষের লোকজন স্কুলের সামনে পাকা সড়কে লাটিসোটা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ায় প্রচেষ্ঠার লিপ্ত হন। এসময়ও সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ সদস্যরা উভয় পক্ষকে ছত্রভঙ্গ করে দিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

এব্যাপারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বলেন, ১১ ডিসেম্বর সভাপতিকে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক বাতিল করা হলেও আমরা আজকে তা জানতে পারি। কি কারণে তাকে বাতিল করা হল কিংবা  কেন এতো দিন তা লুকিয়ে রাখলেন অধ্যক্ষ তা এলাকাবাসী জানেন না। এছাড়া একজন সাজাপ্রাপ্ত আসামি কোনো অবস্থাতেই একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হতে পারেন না। স্থানীয় এমপি মোকাব্বির খানকে না জানিয়ে কাগজপত্রাদি জালিয়াতি করে আবারক আলী গভর্নিং কমিটির সভাপতি হয়ে ছিলেন বলে মন্তব্য করে তিনি সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে এর সাথে জড়িতদের শাস্তি দাবী করেন।

এছাড়া আব্দুল আজিজ ও আফরোজ আলী বলেন, আবারক আলীর অনিয়ম দূর্নীতির বিরুদ্ধে কমিটিতে থাকা কেউ কোন প্রতিবাদ করলে, পরবর্তি কমিটিতে তিনি আর থাকতে পারেন না। তাকে যারা জ্বি জ্বি করে একমাত্র তারাই স্থান পায় কমিটিতে। বিগত সময়ে আমরা তার দূর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে আমরাও কমিটি থেকে বাদ পড়েছি।

সিলেট শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান কর্তৃক প্রতিষ্ঠানের গভনিং কমিটির সভাপতি আবারক আলীকে বাতিল করার সত্যতা স্বীকার করে সিংগেরকাছ পাবলিক বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ’র অধ্যক্ষ জোবায়ের হোসেন মজুমদার বলেন, বিধিমতেই গভর্নিং বডির কমিটি গঠন করা হয়ে ছিলো। আর সভাপতি পদের জন্য নাম পুনর্র্নিবাচনের জন্য আজকের (শনিবার) সভাটি তার সভাপতিত্বেই অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাতিল হওয়া সভাপতি আলহাজ্ব আবারক আলী বলেন, পদ বাতিল হওয়ার পর গত ২০ ডিসেম্বর তিনি হাইকোর্টে আবেদন করে পদ বাতিলের বিষয়টি স্থগিত করেছেন। আর স্থগিতাদেশের ডকুমেন্ট সভা চলাকালীন সময়েই তিনি হাতে পেয়েছেন।

এব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় ফের সংঘর্ষ এড়াতে ওই এলাকায় পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে।

বিশ্বনাথ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সমীর কান্তি দে বলেন, উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করা হবে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।