ঢাকাসোমবার , ৩১ অক্টোবর ২০২২
  1. অপরাধ ও দুর্নীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আহত
  4. এওয়ার্ড
  5. কৃষি
  6. খেলাধুলা
  7. জাতীয়
  8. তথ্য প্রযুক্তি
  9. দিবস
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচন
  12. বিনোদন
  13. মৃত্যু
  14. রাজনীতি
  15. শিক্ষা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নাটোরে নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে দাদা গ্রেপ্তার

Ranisankailnews24
অক্টোবর ৩১, ২০২২ ৬:২৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

খঃ তানজিবুল স্টাফ রিপোর্টারঃ নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ১০ বছরের শিশু নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগে দাদা গ্রেপ্তার।

রোববার (৩০ অক্টোবর) রাতে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে বাগাতিপাড়া থানায় একটি শিশু ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রেক্ষিতে এদিন রাত ১০ টার দিকে অভিযুক্ত আসামী বাগাতিপাড়া উপজেলার দয়রামপুর ইউনিয়নের হিজলি দীঘা পাড়া গ্রামের মৃত রমজান খলিফার ছেলে আঃ সালামকে (৪৫) তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ।

 

উল্লেখ্য গত ১৩ জুলাই দুপুরে নাটোরের বাগাতিপাড়ায় ১০ বছরের নাতনিকে ধর্ষণ করে মোঃ আব্দুস সালাম (৪৫) নামে শিশুটির দাদা। এ ঘটনার প্রায় তিনমাস পরে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

মামলার বাদী ভিকটিমের মা বলেন, আসামি আঃ সালাম সম্পর্কে তার মামা শশুর হয়। সে সম্পর্কে তার শিশু কন্যা সালামের নাতিন হয়। গত ১৩ জুলাই আঃ সালামের আপন ভাতিজীর বিয়ের অনুষ্ঠান চলছিল। সেই অনুষ্ঠানে অন্যান্যরা বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত ছিলো। ওই অনুষ্ঠানে আমার ১০ বছরের শিশু কন্যা কাওমী মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী বিয়ে বাড়িতে যায়। এ সময় আমার মামা শশুর আমার মেয়েকে সুকৌশলে ডেকে তার বাড়ির অতিরিক্ত (স্টোর রুম) ঘরে নিয়ে গিয়ে মেয়েটিকে বিবস্ত্র করে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় আমার মেয়ে চিৎকার করলে তার মুখ চেপে ধরে বলে এই কথা কাউকে জানালে তোকে মেরে ফেলবো। সেই ভয়ে এতদিন কাউকে কিছু বলেনি। এরপর থেকে ধর্ষক সালাম নিজেকে আত্মগোপনে রাখে বিগত তিনমাস। আজ প্রায় তিনদিন আগে সে বাড়িতে আসে। আর তাকে দেখার পর থেকে আমার মেয়ে প্রায় সময় ঘুমের মধ্যে ভয়ে কেঁদে কেঁদে উঠে। রোববার সকালে আবার আমার মামা শশুর আঃ সালামকে দেখে সে ভয়ে দৌড়ে এসে আমাকে ওইদিনের ঘটনা খুলে বলে। পরে আমি থানায় এসে আমার শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে আমার মামা শশুর আব্দুস সালামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করি। আমি সালামের কঠিন শাস্তি চাই। যাতে করে আর কেউ যেন এমন জঘন্য কাজ না করে বলে কেঁদে ফেলেন ভিকটিমের মা।

বাগাতিপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুল ইসলাম, এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এই শিশু কন্যা ধর্ষণের ঘটনা প্রায় তিনমাস আগে। তবুও রোববার (৩০ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৭টার দিকে এজাহার পেয়ে রাত ১০টার দিকে অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় থানা পুলিশ। আসামিকে আদালতে প্রেরণের প্রক্রিয়া চলছে।

 

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।