ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১৯ জানুয়ারি ২০২৩
  1. অপরাধ ও দুর্নীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. আহত
  4. এওয়ার্ড
  5. কৃষি
  6. খেলাধুলা
  7. জাতীয়
  8. তথ্য প্রযুক্তি
  9. দিবস
  10. ধর্ম
  11. নির্বাচন
  12. বিনোদন
  13. মৃত্যু
  14. রাজনীতি
  15. শিক্ষা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাণীশংকৈলে পৌর কাউন্সিলর সহ আটক -২ 

Ranisankailnews24
জানুয়ারি ১৯, ২০২৩ ১০:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোঃ রবিউল ইসলাম স্টাফ রিপোটার রাণীশংকৈল( ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল পৌরশহরে দোকানে ভাংচুর ও হুমকির মামলায় বৃহস্পতিবার ১৯ জানুয়ারি সকালে কাউন্সিলর আবু তালেবকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।এইসাথে বিকেল ২ টার দিকে ঘটনাস্থল ভাইভাই

হার্ডওয়্যার স্টোরের সামনে থেকে তদন্তে প্রাপ্ত আসামি হিসেবে লেমন(৩০)নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। লেমন ভান্ডারা এলাকার আবুল কালামের ছেলে। রাণীশংকৈল থানার ওসি গুলফামুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তদন্তকালে ডিসি মাহবুবর রহমান, এসপি জাহাঙ্গীর হোসেন, সাবেক সংসদ সদস্য সেলিনা জাহান লিটা, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আজম মুন্না, ইউএনও সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির, আ’লীগ সভাপতি অধ্যাপক সইদুল হক, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শেফালী বেগম , এসি ল্যান্ড ও পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান সহ বিভিন্ন নেতা ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, গত ১৫ জানুয়ারি রবিবার পৌর কাউন্সিলর আবু তালেব ভাই ভাই হার্ডওয়ার দোকানে গিয়ে সামনে রাখা মালামাল সরাবার কথা বলে বেধড়ক ওই মালামাল ভাংচুর করে। এসময় মেয়র ঘটনাস্থলে এসেও তালেবকে থামাতে পারেননি। এতে দোকানের ও আশপাশের লোকজন তালেবকে ঘেরাও করে গণধোলাই দেয়। ঐদিন আহত কাউন্সিলরকে দিনাজপুর মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। এরমধ্যে পৌরমেয়রসহ নেতারা ঘটনার মিমাংসা করতে ব্যর্থ হন। হাসপাতাল থেকে ফিরে কাউন্সিলর তালেব দলবল নিয়ে গত বুধবার ১৮ জানুয়ারি সন্ধ্যায় একটি প্রতিবাদ মিছিল করেন। মিছিলে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের লোকজনকে হত্যার হুমকিসহ বিভিন্ন আপত্তিকর শ্লোগান দেয়া হয়। মেয়রের বিরুদ্ধেও অনুরূপ শ্লোগান দেয়া হয়। এনিয়ে ওই রাতেই দোকানদারদের পক্ষ থেকে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। এদিকে এই ঘটনা নিয়ে পৌর মেয়র সহ স্থানীয় দোকানদাররা নিরাপত্তাহীনতায় আছে বলে মন্তব্য করেন পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান । উল্লেখ্য যে আজ ১৯ জানুয়ারি সকাল ১১ টায় এ বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল সুলতান জুলকারনাইন কবিরের সভাপতিত্বে সামাজিক সম্প্রীতি কমিটির বর্ধিত সভা অনুষ্টিত হয় এতে জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান ও জেলা পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ , উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গণ , জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি- সাধারণ সম্পাদকসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় সামাজিক সম্প্রীতি বজায় রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।